আবর্জনা এবং নোংরার ভেতর পড়ে থাকা পচা খাবার তুলে খাচ্ছে মানুষ,নির্মম ছবি ইসলামপুরে

0
119
সুশান্ত নন্দী, ইসলামপুর: এমন ছবিও দেখতে হবে আমাদেরকে! সময়টা কি এমনটাই এসে গেছে? না হলে এই ছবি কেন? ডাস্টবিন থেকে আবর্জনা এবং নোংরার ভেতর পড়ে থাকা পচা খাবার তুলে খেতে হচ্ছে মানুষকে? এ দৃশ্য উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর শহরের। পেটের জ্বালা সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত অনেক জায়গা থেকে বিতাড়িত হয়ে শেষ ভরসা এই ডাস্টবিনের পচা খাবার। যা খেয়ে খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে মুহূর্তেই মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। এই যন্ত্রণার ছবিতে রাস্তায় যেতে যেতে অনেক মানুষের চোখ আটকে গেছে। ইসলামপুর উকিল পাড়ায় এই দৃশ্যের মুখোমুখি হয়ে সাধারণ মানুষ রীতিমতো থমকে দাঁড়িয়েছেন সেখানটায়। সেই মানুষটির হাতে তখন তারা কিছু টাকা তুলে দিয়ে বললেন এখান থেকে খাবার খেওনা ।কিনে খাও।কিন্তু ওই ভবঘুরে এবং কিছুটা মানসিক অবসাদগ্রস্ত মানুষটির টাকা পেয়েও যেন তেমন কোনো আনন্দ নেই ।কারণ তিনি যেভাবে নোংরা পোশাক পরে রয়েছেন তাতে কোন দোকানদার কিংবা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের দরজার সামনে গিয়ে দাঁড়াতে পারবেন বলে মনে হয় না। তাই টাকার চেয়ে বুঝি ওই খাবারটিই তার কাছে যথেষ্ট ছিল। সেই মুহূর্তে এই দৃশ্যের মুখোমুখি হওয়া কয়েকজন মানুষ যখন ভাবছিলেন কিভাবে এই অসহায় মানুষটির জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা যায়; আর ঠিক তখনই উর্ধ্বশ্বাসে দৌড়ে পালাল সে। তাকে আর খুঁজেই পাওয়া গেল না ওই তল্লাটে। নোংরা আবর্জনার মধ্য থেকে নষ্ট হয়ে যাওয়া খাবার খুঁজে খুঁজে খাচ্ছিলেন সেই মানুষটি। তবে এমন দৃশ্য একবার দেখা গেলেও তা যেন আর কখনো না দেখা যায়। এমনটাই ইসলামপুর শহরের সমাজকর্মীরা জানিয়েছেন। সমাজকর্মীদের পক্ষে স্বরূপানন্দ বৈদ্য জানান ,তারা প্রতিদিন পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বাড়িতে খাবার রান্না করছেন এবং তা সরবরাহ করছেন। খবর পেলে তারা সেখানেও পৌঁছে দিয়ে আসতে পারতেন ।ইসলামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান জানান ,এ ধরনের ভবঘুড়েদের জন্য একটি কমিউনিটি কিচেন খোলা হয়েছে ইসলামপুর ট্রাক টার্মিনাস সংলগ্ন এলাকায়। কেউ এ ধরনের খবর পেলে সেখানে তাদের যাতে পৌঁছানো যায়, সেই ব্যবস্থাটুকু তাদের করে দেবার অনুরোধ জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here