উত্তর দিনাজপুরে “বাংলার গর্ব মমতা” তৃণমূলের কর্মসূচি নিয়ে বিজেপি-তৃণমূলের রাজনৈতিক তরজা

0
83

রায়গঞ্জঃ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে কর্মসূচি “বাংলার গর্ব মমতা”- নিয়ে শাসক বিরোধী তরজা তুঙ্গে। একদিকে বিজেপির দাবী যে কর্মসূচি চালু করা হয়েছে তাতে বাংলার মনীষীদের অপমান করা হচ্ছে।  এমনটাই মনে করছে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি। তাদের মতে স্বঘোষিত বাংলার গর্ব হিসেবে নিজেকে তুলে ধরতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী। যা কোনভাবেই ঠিক নয়।

বরং এতে চূড়ান্ত অপমানের শিকার হতে হচ্ছে বাংলা মনীষীদের। বাংলার মানুষ  যাদেরকে নিজেকে গর্ব হিসেবে মনে করবে তাদেরকেই বাংলার গর্ব হিসেবে তুলে ধরা উচিত। যদিও তৃণমূলের পালটা দাবী,বাংলার মনীষীরা তো অবশ্যই বাংলার গর্ব। নতুন করে কেউ বাংলার গর্ব হতে পারে না এমন তত্ত্ব বিজেপি খাড়া করলে তা কোনোভাবে মেনে নেবে না সাধারণ মানুষ।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় একটি কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। যার নাম দেওয়া হয়েছে বাংলার গর্ব মমতা। প্রতিটি জেলা ব্লক স্তরের তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা বিধায়ক সাংসদরা এই কর্মসূচি পালন করছেন। যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিভাবে মানুষের উপকারের জন্য নানান কর্মসূচি নিয়েছেন তার বিস্তারিত বিবরণ দেওয়া হচ্ছে।

কোন কোন কর্মসূচি জনদরদি তা জানাতে কোনো কসুর বাকি রাখছেন না তারা। রাজ্যের অন্যান্য জায়গার মতো একই ভাবে উত্তর দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এই কর্মসূচি পালন করছেন জেলার বিভিন্ন স্তরের নেতা বিধায়করা। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এই কর্মসূচির খবর উঠে আসছে। এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে জেলা বিজেপি। তাদের মতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেকে স্বঘোষিত বাংলার গর্ব হিসেবে সবার সামনে উপস্থাপিত করতে চাইছেন।

যা কোনভাবেই ঠিক নয়। বাংলার বিভিন্ন ক্ষেত্রের মনীষীদের সম্মান ক্ষুন্ন হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে মঙ্গলবার সন্ধ্যা বেলায় রায়গঞ্জের বিজেপি দলীয় কার্যালয় সাংবাদিক সম্মেলন করেন রায়গঞ্জ উত্তর শহর মন্ডল কমিটি। কার্যালয়ের ভেতরে চারিদিকে বিভিন্ন মনীষীর ছবি দিয়ে বাংলার গর্ব হিসেবে তাদের তুলে ধরেন নেতাকর্মীরা। তারপর সাংবাদিক সম্মেলনে এই সকল মনীষীদের অপমান করা হচ্ছে বলে দাবি করেন রায়গঞ্জ উত্তর শহর মন্ডলীর সভাপতি অভিজিৎ যোশি।

তিনি বলেন সম্প্রতি আমরা বিভিন্ন জায়গায় রাস্তায় পোস্টার দেখছি। সংবাদপত্র এবং টেলিভিশনে একটি নতুন ধরনের তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মসূচি দেখতে পাচ্ছি। যেখানে বলা হচ্ছে বাংলার গর্ব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বঘোষিত বাংলার গর্ব কর্মসূচির মাধ্যমে তিনি দলের কার্যক্রম করে আদতে বাংলার মনীষীদের অপমান করছেন। মুখ্যমন্ত্রী চিটফান্ডের কর্তা ছাত্র খুনের নেপথ্যে আছেন তিনি। ছাপ্পা ভোটের নেত্রীও তিনি। তাহলে তিনি কিভাবে বাংলার গর্ব হচ্ছেন? বিভিন্ন মনীষীদের ভারত তথা বাংলার প্রতি যে ত্যাগ সে বিষয়টিকে ক্ষুন্ন করা হচ্ছে বলেই আমরা মনে করছি। এমন কর্মসূচির বিপক্ষেই আমরা রয়েছি।

এ বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি মানষ ঘোষ বলেন বাংলা মনীষীরা অবশ্যই বাংলার গর্ব। তবে নতুন করে আর কেউ বাংলার গর্ব হতে পারে না এমন তত্ত্ব আমরা মানতে রাজি নয়। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মানুষের জন্য যে পরিমাণে কাজ করেছেন তাতে তিনি অনায়াসে বাংলার এবং গোটা দেশে কাছে গর্বের বিষয়বস্তু হয়ে উঠতে পারেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here