মাল পৌর ভোট নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তৎপরতা

0
38

মালবাজার: মাল পৌরসভার নির্বাচন সমাগত। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে। কোন ওয়ার্ডে কি সমস্যা আছে?  সেই সমস্য আগামী দিনে ইস্যু হয়ে উঠবে কি না?  সেনিয়ে চর্চা শুরু হয়ে গেছে। শহরের পূর্ব দিক দিয়ে বয়ে গেছে মাল নদী। এই নদীর পার বরাবর মহাকাল পাড়া, কুমার পাড়া, ক্যালটেক্স মোর নিয়ে মাল পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ড।

ওয়ার্ডে বাঙ্গালী, বিহারি, নেপালী, আদিবাসী সহ নানান বর্ন ও ধর্মের মানুষ বাস করে। সবার মধ্যে সদ্ভাব সম্প্রতি আছে। গত ৫ বছরে এই ওয়ার্ডে রাস্তা, পানীয়জল, পথবাতি, নিকাশি নালা সহ অন্যান্য ক্ষেত্রে প্রচুর কাজ হয়েছে। বহু মানুষ আবাস যোজনার ঘর পেয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই সমস্যা নিয়ে এই ওয়ার্ডে কেউ মুখ খোলেননি। কিন্তু, মাল নদীতে ফেলা জঞ্জাল নিয়ে সরব সবাই। পাশাপাশি এক আফসোসের কথা সবাই বলেছে।

এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর চেয়ারম্যান স্বপন সাহা। এবার সংরক্ষণের গেরোয় স্বপন বাবু এবার এই ওয়ার্ডে প্রার্থী হতে পারছেন না। এটাই অনেকের আফসোস। এই ওয়ার্ডের বাসিন্দা ব্যবসায়ী বাবুয়া প্রসাদ বলেন, এই ওয়ার্ডে বিশেষ সমস্যা নেই। তবে শহরের সব আবর্জনা মাল নদীতে ফেলা হচ্ছে। দূগন্ধ ও দুষন ছড়াচ্ছে। এটা ব্যবস্থা করা উচিত। এই ওয়ার্ডে থাকেন ব্যবসায়ী সুরেশ মাহাতো। তিনি জানান, এলাকায় প্রচুর কাজ হয়েছে।

রাস্তা পানীয়জল, পথবাতির সমস্যা নেই। চেয়ারম্যান আমাদের ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। যথেষ্ট কাজ করেছেন। সংরক্ষণের জন্য এবার উনি প্রার্থী হতে পারছেন না। অন্য কেউ হবে। উনি থাকলে ভালো হতো। এলাকার বাসিন্দা প্রদীপ পন্ডিত। তিনি বলেন,কুমার পাড়া এলাকায় নিকাশি ব্যবস্থা ও রাস্তার সমস্যা আছে। এগুলো ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। ধ্রুব বিশ্বকর্মা বলেন, মাল নদীর জঞ্জাল ছাড়া বিশেষ সমস্যা নেই। এই জঞ্জাল পরিস্কার করা উচিত।

এনিয়ে এই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা চেয়ারম্যান স্বপন সা্হা বলেন, চেষ্টা করেছি যথা সম্ভব পরিসেবা দেবার। আগামীদিনেও এই পরিসেবা দেওয়ার চেষ্টা করে যাব। মাল নদীর জঞ্জাল সমস্যা রয়েছে। এর আগে পরিস্কার করা হয়েছে। আবার করা হবে। এখনো আমাদের প্রার্থীদের নাম ঠিক হয়নি। এটা দলে আলোচনা করেই স্থির হবে। তবে শহরের বাসিন্দাদের হতাশা কোন কারন নেই। যেই জিতে আসুক উন্নয়ন ব্যহত হবে না। উন্নয়নের গতি একই থাকবে। পরিষেবা ব্যহত হবেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here