বিয়ের পরদিনই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন দীপঙ্কর দে

0
79

দেবলীনা ব্যানার্জী : বরের বয়স ৭৫ আর কনের ৪৯। বয়সের বিশাল ফারাক থাকলেও বিশিষ্ট অভিনেতা দীপঙ্কর দে ও অভিনেত্রী দোলন রায়ের ভালোবাসা ছিল অটুট।  বহু বছর একসঙ্গে থাকার পর বৃহস্পতিবার সাতপাকে বাঁধা পড়লেন দুই তারকা।হাইল্যান্ড পার্কের কাছে একটি রেস্তোরাঁয় বসেছিল বিয়ের আসর। রেজিস্ট্রি করে বিয়ে মালাবদল সবই হয়েছে। পরনে লাল বেনারসী ও মাথায় লাল ফুল দিয়ে নববধূর বেশে সেজেছিলেন দোলন। আর সাবেকি বাঙালি সাজে সাদা কুর্তা ও ধুতি পরেছিলেন ৭৫ বছরের তরুণ দীপঙ্কর দে ।

কিন্তু চব্বিশ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই হল ছন্দপতন। শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভরতি হলেন অভিনেতা দীপঙ্কর দে। একটি বেসরকারি হাসপাতালের ইনটেনসিভ কার্ডিয়াক কেয়ার ইউনিটে ভরতি হয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই সিওপিডি’র সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। শুক্রবার দুপুর থেকেই তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এরপর কোনও ঝুঁকি নিতে চায়নি পরিবারের লোকেরা। বিকেলে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভরতি করা হয়। আপাতত আইসিসিইউতে রাখা হয়েছে তাঁকে। চিকিৎসা চলছে অভিনেতার।

বৃহস্পতিবার খুব কাছের মানুষদের সাক্ষী রেখেই রেজিস্ট্রি করেন দোলন এবং দীপঙ্কর। ছিমছামভাবে একেবারে প্রায় ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়েই বাকি জীবনটা একসঙ্গে কাটানোর অঙ্গীকারবদ্ধ হন তাঁরা। বিবাহ আসরে উপস্থিত ছিলেন ব্রাত্য বসু, সৌমিত্র মিত্র, ধ্রুব কুণ্ডু, শীর্ষ সেন এবং লেখক-সাংবাদিক রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়। উপস্থিত ছিলেন দোলনের ভাই দুর্গাশীষও। তাঁদের উপস্থিতিতেই রেজিস্ট্রি করেন দোলন ও দীপঙ্কর। বন্ধুদের হাসিঠাট্টা, আড্ডার মাঝে হল মালাবদলও। নবদম্পতির মুখে তখন হাসি। এরমধ্যেই হঠাৎ ঘটে যাওয়া এই বিপদের পর চিকিৎসা চলছে অভিনেতার। সুস্থতার কামনা করছে পরিবার, বন্ধুবান্ধবদের সাথে ভক্তকুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here