মানুষ ও বন্যপ্রাণীর সংঘাত রুখতে সবাইকে সচেতন হতে হবে, বললেন রাজ্যের মন্ত্রী

0
38

মালবাজারঃ ডুয়ার্সের চাবাগান ও গ্রামাঞ্চলে মানুষ ও বন্যপ্রাণীর সংঘাত ক্রমাগত বাড়ছে। সেই সংঘাত কমাতে বনকর্মীদের যেমন তৎপর হতে হবে পাশাপাশি মানুষকে সচেতন করতে হবে। সংরক্ষিত বনাঞ্চলে মানুষ যাতে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য মানুষকে বোঝাতে হবে। প্রয়োজনে বিভিন্ন সংগঠনের সাহায্য নিতে হবে। সবাই মিলে কাজ করে বন ও বন্যপ্রাণী রক্ষা করতে হবে। মানুষকেও বাঁচাতে হবে।ক্ষতি পূরণ দিয়ে মানুষের জীবনের মুল্য হয়না। সবদিক ভাবতে হবে।

মঙ্গলবার মেটেলি ব্লকের মুর্তিতে বন্যপ্রাণ ৬টি স্কোয়ার্ডকে বাইক প্রদান করতে এসে এই কথাগুলি বলেন রাজ্যের বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। ডুয়ার্সের বিভিন্ন এলাকায় মানুষ ও বন্যপ্রাণীর সংঘাত ক্রমাগত বাড়ছে। এই সংঘাতের সময় বনকর্মীদের নানান প্রান্তে ছুটে যেতে হয়। গাড়ি নিয়ে সর্বত্র সবসময় পৌছুতে সমস্যা হয়। এই সমস্যার কথা ভেবে ডাবলু ডাবলু এফের সাহায্যে  ৬টি স্কোয়াডকে ১০টি আধুনিক বাইক দেওয়া হয়। মাল, খুনিয়া, রামসাই বিন্নাগুড়ি, শুকনা সহ ৬টি স্কোয়ার্ডকে এই ১০ টি তুলে দেওয়া হয়।
মন্ত্রী শুধু সচেতন নয়  হাতি ও বন্য প্রাণীর চলাচলের রাস্তায় ব্লেড তারের বেরা নিয়ে সোচ্চার হয়ে বলেন, অবিলম্বে বনাধিকারিকদের নিয়ে আলোচনা করে যারা এই ব্লেড তার দিয়ে বেরা দিয়েছেন তাদের চিঠি দিয়ে খুলে ফেলার বিষয়ে জানান হবে। এতে কাজ না হলে অন্য ব্যবস্থা নিতে হবে।
এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত মুখ্য বনপাল বিপিন কুমার সুদ, উত্তরবঙ্গের মুখ্য বনপাল উজ্জ্বল ঘোষ, ডাবলু ডাবলু এফের দিপেন্দু সোনার, সন্মাীয় বন্যপ্রাণ ওয়ার্ডেন সীমা চৌধুরী, ডিএফও নিশা গোস্বামী প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here