ইসলামপুরের আলুয়াবাড়ি রেলস্টেশন পরিদর্শনে এনএফ রেলওয়ের জিএম সঞ্জীব রায়

0
42

ইসলামপুর: রেলওয়ের সমস্ত বিভাগগুলি একসাথে যাতে আরও ভাল  কাজ করে এবং যাত্রীদের আরও উন্নত পরিষেবা দিতে হবে। সোমবার ইসলামপুরের আলুয়াবাড়ি রেলস্টেশন পরিদর্শনকালে এনএফ রেলওয়ের জিএম সঞ্জীব রায় এই কথা বলেন। অন্যদিকে  আলুযাবাড়ী রেলস্টেশনটিতে আরও যাত্রীবাহী ট্রেনের সুবিধা এবং  এক্সপ্রেস ট্রেনগুলির স্টপেজ থাকা উচিত। এই দাবি দীর্ঘদিনের। জেনারেল ম্যানেজার এই বিষয় গুলি বিবেচনা করবেন এবং সম্পর্কিত বিষয়গুলি রেলওয়ে বোর্ডের নজরে আনবেন বলে জানান।

তিনি বলেন, এই দাবি  বিভিন্ন সংস্থা ও রাজনৈতিক দল দিয়েছে। আলুয়াবাড়ী রেলস্টেশনটির নাম ইসলামপুর জংশন বা ইসলামপুর টাউন নামকরণের প্রশ্নে ডিএম বলেন যে, রাজ্য সরকার থেকে স্টেশনটির নাম রেলওয়ে বোর্ডের কাছে প্রস্তাব হিসেবে পাঠালে বোর্ডের কথা বিবেচনা করে নাম পরিবর্তন করা যেতে পারে। কোনও স্টেশনের নামই সরাসরি পরিবর্তন করে না। এ কারণেই নাম পরিবর্তন করার দাবিটি এখানে রাজ্য সরকার দ্বারা সংগঠিত করা উচিত এবং এর মাধ্যমে নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব পাঠানো উচিত।

জানা যায় যে, দক্ষিণ ভারত, দিল্লী, মুম্বই, পাটনা সহ অনেক জায়গায় যাওয়ার জন্য আলুয়াবাড়ি রেলস্টেশনে সুপারফাস্ট এবং এক্সপ্রেস ট্রেন থামার দাবিতে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি ও ইসলামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান কানহাইয়া লাল আগরওয়াল বলেন যে, স্থানীয়  লোকেরা জিএমের সামনে তাদের দাবি রেখেছিল এবং তারা এই দাবিগুলি বিবেচনা করে তা পূরণের আশ্বাস দিয়েছে।

সিপিএমের ইসলামপুর এরিয়া কমিটিও দক্ষিণ ভারত সহ পাটনা, দিল্লি, কলকাতা, মুম্বাই সহ অনেক জায়গায় যাওয়ার ট্রেনগুলির স্টপেজের দাবি করেছিল। পাশাপাশি ইসলামপুরের শান্তি নগরের অভ্যন্তরে যেতে বা ওভার ব্রিজিং করা এবং সকালে রায়গঞ্জ যাওয়ার জন্য ট্রেন দেওয়া হয়। সিপিএমের ইসলামপুর অঞ্চল কমিটির সেক্রেটারি বিকাশ দাশ বলেন যে, এই দাবিগুলির বিষয়ে জিএমকে আগে মেমো দেওয়া হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here