বেশ চাকচিক্য নিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে ইংরেজি মাধ্যম মাদ্রাসা ভবন, শিক্ষকসহ পরিকাঠামোর অভাবে অন্তঃসারশূন্য হয়ে সেটি ধুঁকছে

0
43

ইসলামপুর : ইংরেজি মাধ্যম মাদ্রাসায় পঠন-পাঠনের আদৌ কোন পরিকাঠামোই নেই। শুধুমাত্র ভবনটি ছাড়া সব  যেন অন্তঃসারশূন্য। নেই কোনো স্থায়ী শিক্ষক, নেই সুইপার এবং গার্ডও। নেই আরও অনেক কিছুই। কয়েকজন মাত্র অতিথি শিক্ষক দিয়ে কোনো রকমে জোড়াতালি দিয়ে চালানো হচ্ছে গোয়ালপোখর এক ব্লকের পাঞ্জিপারাতে উত্তর দিনাজপুর মডেল মাদ্রাসা ইংলিশ মিডিয়াম নামে ওই শিক্ষা কেন্দ্রটি। ফলে দীর্ঘদিন ধরে এই বেহাল অবস্থা এই মাদ্রাসাটি।

অভিভাবকরাও নানান সমস্যার সম্মুখীন। মাদ্রাসার অতিথি শিক্ষক সাব্বির আহমেদ রাজা জানান, এটি কোন বোর্ডের অধীনস্থ তাও জানা নেই। একেক সময়ে একেক রকম বই আসছে। এ বিষয়ে আদৌ কোনো প্রশাসনিক হেলদোল চোখে পড়ে না। চরম ভাবে  শিক্ষকের অভাবে ধুঁকছে এই মাদ্রাসাটি। অথচ উপযুক্ত পরিকাঠামো থাকলে একটি ইংরেজী মাধ্যম মাদ্রাসায় প্রচুর পড়ুয়া পড়াশুনা করার জন্য সব ধরনের সুযোগ পেত। ক্ষোভে ফুঁসছে স্থানীয় পড়ুয়ারাও। ওই মাদ্রাসায় ঢুকে দেখা গেল দূর থেকে ভবনে চাকচিক্য থাকলেও নেই কোন মেইনটেনেন্স।

জানা গেল আদৌ সেখানে মেইনটেনেন্স গ্র্যান্ট বলে কিছুই আসে না। ৩০১৭ সালে এটি উদ্বোধন হওয়ার পর থেকে মোটামুটি এভাবেই জোড়াতালি দিয়ে চলছে সেটি। হোস্টেল থাকলেও তা আদৌ চালুই হয়নি। বাইরে থেকে অনেক পড়ুয়া এখানে ভর্তি হয়েছে। দূরবর্তী পড়ুয়াদের থাকার জন্য কোনও ব্যবস্থা না থাকায় তারা একেবারেই মাদ্রাসা মুখী হয় না বললেই চলে। শুধু মাত্র পরীক্ষার সময় তারা নামমাত্র পরীক্ষা দিতে আসে। এলাকার প্রধান মহম্মদ রাহি জানিয়েছেন, ভবনটি আকারে বিশাল। বাইরে থেকে দেখে অনেক কিছু মনে হলেও আদতে অন্তঃসারশূন্য।

অতিথি শিক্ষক নিয়ে সেখানে কাজ চালানোর জন্য কয়েকজন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হলেও পরিকাঠামোর অভাবে ধুঁকছে সেটি। এখানে রাজ্যের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি থেকে শুরু করে এলাকার মন্ত্রী গোলাম রাব্বানী, এসডিও সবাই এসেছিলেন। তারা প্রতিশ্রুতও দিয়েছেন খুব শীঘ্রই সমস্যার সমাধান হবে। কিন্তু সমস্যা কিন্তু নতুন শিক্ষাবর্ষেও সেই তিমিরেই। অবিলম্বে একজন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ করা সেখানে প্রয়োজন। এ বিষয়ে জেলা শাসক ও মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন অভিভাবকরা। যদিও এ বিষয়ে রাজেশ শ্রম মন্ত্রী তথা গোয়ালপোখর বিধায়ক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here