ট্রেন আটকে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফেটে পড়ল ধর্মঘট সমর্থনকারীরা

0
38

সুমন মণ্ডল, কোচবিহার : দিনহাটা রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেন আটকে দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফেটে পড়ল ধর্মঘট সমর্থনকারীরা। বুধবার   বামনহাট   শিলিগুড়ি জংশন  ভায়া  আলিপুরদুয়ার জংশন  প্যাসেঞ্জার ট্রেন সকাল সাড়ে ১০ টা নাগাদ  দিনহাটা স্টেশন ঢুকতেই বনধ  সমর্থনকারীরা ট্রেন আটকে দেয়। দিনহাটা স্টেশনে শিলিগুড়ি গামী প্যাসেঞ্জার ট্রেন ধর্মঘট সমর্থনকারীরা আটকে দিলে ব্যাপক আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ে।

স্টেশনে ট্রেন আটকে দেওয়ার ঘটনায় রেল পুলিশের তৎপরতায় অল্পসময়ের মধ্যেই অবরোধ উঠে যায়। এদিন দিনহাটা স্টেশনে ট্রেন আটকে দেওয়ার সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ফরওয়ার্ড ব্লকের কোচবিহার জেলা সম্পাদক প্রাক্তন বিধায়ক অক্ষয় ঠাকুর, যুবলীগের রাজ্য সম্পাদক আব্দুর রউফ, সিপিএমের জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য তারাপদ বর্মন, এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শুভ্রালোক দাস, এসইউসিআই নেতা আজিজুল হক, কংগ্রেসের দুলাল রহমান প্রমুখ।

ধর্মঘট সমর্থনকারীরা দিনহাটা স্টেশনে এদিন ট্রেন অবরোধ  করতেই রেল পুলিশের বিশাল বাহিনী দ্রুত সেখানে ছুটে আসে। রেল পুলিশের তৎপরতায় অল্প সময়ের মধ্যেই অবরোধমুক্ত হয় ট্রেন। এদিন কয়েক মিনিটের জন্য ট্রেন ধর্মঘর সমর্থনকারীরা আটকে দিলেও নির্ধারিত সময় অনেকটা পরে শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে ট্রেন রওনা হয়। এদিন ট্রেন অবরোধ কারীদের ফরওয়ার্ড ব্লকের জেলা সম্পাদক অক্ষয় ঠাকুর , সিপিএম নেতা তারাপদ বর্মন প্রমুখ বলেন এনআরসি এবং সিএ এ বাতিলের দাবির পাশাপাশি কাজের অধিকার, ফসলের ন্যায্য মূল্য দেওয়া এবং শ্রমিক ছাঁটাইয়ের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়ন গুলির  ডাকে  ধর্মঘটের সমর্থনে এদিন দিনহাটা স্টেশনে রেল অবরোধ করা হয়।

এদিকে এদিনের এই ধর্মঘটের ফলে দিনহাটায় সংগঠনগুলির পক্ষ থেকে মহকুমা শাসকের দফতরের সামনেও পিকেটিং করা হয়। সাধারণের ধর্মঘটে এদিন দিনহাটার  রাস্তায় বেসরকারি বাস দেখা না গেলেও সরকারি বাস চলে স্বাভাবিকভাবেই। হাট-বাজার দোকানপাট সবই ছিল বন্ধ। এদিনের বন্ধের সমর্থনে সংগঠনগুলির কর্মী সমর্থকদের বিরাট মিছিল দিনহাটা শহরের বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে।

আন্দোলনকারীদের যুবলীগের রাজ্য সম্পাদক আব্দুর রউফ বলেন কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে এদিনের ধর্মঘটে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে এদিন ট্রেন অবরোধ করে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন তারা। মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে সাধারণ ধর্মঘট কে সমর্থন জানিয়েছেন। এদিকে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে দিনহাটা স্টেশনে শিলিগুড়ি জংশন প্যাসেঞ্জার ট্রেন ধর্মঘর সমর্থনকারীরা আটকানোর অল্প সময়ের মধ্যে রেল পুলিশের হস্তক্ষেপে তা উঠে গেলে ফের ট্রেনটি শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here