একগুচ্ছ সামাজিক কর্মসূচি নিয়ে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকায় এক অন্যধারার জন্মদিন

0
56

সুশান্ত নন্দী, গোয়ালপোখর: জন্মদিনে কোনো পার্টি নয়। বরং একগুচ্ছ সেবা মূলক কাজ নিয়ে  দুঃস্থ দের পাশে এসে দাঁড়ালেন এক যুবক। শুধুই কি তাই!সেই সঙ্গে ছিল সবুজের বার্তা এবং রক্তদান শিবিরের আয়োজনও। গোয়ালপোখর থানার অন্তর্গত শ্রীপুর এলাকার বাসিন্দা বিশ্বজিৎ সরকারের ২৯ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে লায়ন্স ক্লাব অফ ইসলামপুরের পক্ষ  থেকে বিভিন্ন সমাজসেবা মূলক কর্মসূচির আয়োজন করা হয় রবিবার।

এদিন  রক্তদান শিবির, বিনামুল্যে সুগার পরীক্ষা, চারাগাছ বিলি এবং দুঃস্থদের কম্বল বিতরণ করা হয়। এই শিবিরে উপস্থিত ছিলেন ডাঙ্গিপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মঙ্গী রাম, লায়ন্স ক্লাব অফ ইসলামপুরের সম্পাদক মঞ্জয় পাল, লায়ন্স ক্লাব অফ ইসলামপুরের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন জীবন দাস এবং মনোজ দত্ত, সাহাপুর ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মুরারি মোহন সরকার এবং অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। বিএসএফ জওয়ানরা প্রদীপ জ্বালিয়ে শিবিরের শুভ সূচনা করেন।

রক্তদান শিবিরে মোট ৩৪ জন রক্তদাতা স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। এর মধ্যে ৬ জন মহিলা রক্তদাতা। এই শিবিরে বিএসএফ এর কোম্পানি কমান্ডার মঙ্গী রামও রক্তদান করেন। সংগৃহিত রক্ত উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল ব্লাড ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে। প্রত্যেক রক্তদাতাকে ২ টি করে চারাগাছ প্রদান করা হয়। এলাকার ৪৬ জন দুঃস্থ মানুষকে কম্বল বিতরণ করা হয় এবং ৯৩ জনকে বিনামূল্যে সুগার পরীক্ষা করা হয়। বিশ্বজিৎ সরকার জানান, প্রতি বছর জন্মদিনে একাই রক্তদান করি।

কিন্তু এবার জন্মদিনে রক্তদান শিবির আয়োজন করে আমাদের এলাকার মানুষের রক্তদান বিষয়ে ভয় দূর করতে এই কর্মসূচি গ্রহণ করেছিলাম। আজ আমার জন্মদিনে লায়ন্স ক্লাব অফ ইসলামপুর এবং আমার এলাকার লোকজন যেভাবে আমার পাশে থেকেছে আমার জন্মদিনের এটাই আমার সবচেয়ে বড় উপহার। লায়ন্স ক্লাব অব ইসলামপুরের সম্পাদক মনিপাল জানান, এ ধরনের কর্মসূচিতে উদ্বুদ্ধ হতে পারে সাধারণ মানুষ। তাতে সামাজিক চাহিদা মেটানো সম্ভব। তাই এই উদ্যোগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here