এই আশ্চর্য বাবার কাছে প্রনামী দিতে হয় না, প্রনাম করলে মেলে টাকা

0
88

রায়গঞ্জ : ধর্মগুরু ও বাবাদের আশীর্বাদ পেতে ভক্তরা প্রনামী সমেত হাজির হন তাঁদের দরবারে। বিপদ আপদে তাঁরাই সঠিক পথ দেখান। এটাই নিয়ম, যুগ যুগ ধরে এমন বিশ্বাসেই গুরুদের কাছে হাজির হন ভক্তরা।  কিন্তু রায়গঞ্জে দর্শন মিলল এক আশ্চর্য বাবার। তাঁর নাম শিবানন্দ বাবা। ভক্তদের দাবি বাবার বয়স ১২৪ বছর। ভক্তদের কাছ থেকে তিনি প্রনামী তো নেনই না, উলটে তাঁকে প্রনাম করলেই মেলে কড়কড়ে দশ টাকার নোট।

রায়গঞ্জে এদিন এই আশ্চর্য বাবার আশীর্বাদ পেতে ভিড় করেন ভক্তরা। রায়গঞ্জের রেলস্টেশন পার্শ্ববর্তী গুড মর্নিং ক্লাবের উদ্যোগে এই শিবানন্দ বাবা দুদিনের জন্য উপস্থিত ছিলেন শহরে। আদতে তিনি উত্তরপ্রদেশের বারানসী কাশীর বাসিন্দা। বাবার সঙ্গে আগত এক মহিলা ভক্ত জানান, বাংলাদেশের শ্রীহট্ট বর্তমান সিলেটে ১৮৯৬ খ্রীস্টাব্দের ৮ আগস্ট এক ভিখারি পরিবারে জন্ম হয় বাবার।

চার বছর বয়সে শুধুমাত্র দুটো খেতে পাওয়ার আশায় নবদ্বীপধামে গুরুর আশ্রমে যান তিনি। সেখানে গুরুর সংস্পর্শে এসে দিব্যজ্ঞান লাভ করেন তিনি। সব মানুষের মধ্যেই তিনি ভগবানকে দেখতে পান। তাই বর্তমানে যেখানে অন্যান্য সাধু সন্তরা ভক্তদের থেকে প্রনামী গ্রহণ করেন,  সেখানে শিবানন্দ বাবা তাঁর ভক্তদের হাতে টাকা তুলে দেন ও সকলকে ভগবানজ্ঞানে প্রনাম করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here