সত্যজিতের হাত ধরে আসছে ‘আবার অপু ও দুর্গা’

0
52

দেবলীনা ব্যানার্জী : বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘পথের পাঁচালী’ র অপু দুর্গাকে চাক্ষুষ করিয়েছেন যিনি, তিনি সত্যজিৎ রায়। পথের পাঁচালীর মেঠো ঘ্রাণ  দেশে বিদেশে তিনিই ছড়িয়ে দিয়েছেন। তাই ‘পথের পাঁচালী’ সত্যজিতের অমর সৃষ্টি হয়ে উঠেছে। দীর্ঘ পঁয়ষট্টি বছর পর সেই পথের পাঁচালীর অপু দূর্গা ফিরছে শহরে। তরুণ পরিচালক সত্যজিৎ দাসের হাত ধরে আগামী বছরে আসছে ‘আবার অপু ও দুর্গা’।

নিশ্চিন্দিপুরের মাঠে নয়, বোড়ালের বাড়িতে নয়, কাশফুলের জঙ্গলে নয়, এই অপু দুর্গার বিচরণভূমি ইঁট, কাঠ, পাথরের আধুনিক শহর। সাম্প্রতিক সময়ের প্রেক্ষিতে অপু ও দুর্গা দুই ভাইবোনের সহজ সরল জীবন কোন খাতে বইবে তাই দেখা যাবে ছবিতে। সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে গল্পেও এসেছে পরিবর্তন। অপু দুর্গার বাবা অসুস্থ হয়ে কোমাতে। বাবার চিকিৎসার খরচ জোগাতে পড়াশোনা ছেড়ে দিয়ে কলকাতায় সেলাইয়ের কাজ করতে যায় দুর্গা।

সাথে ভাইকে বড় মানুষ করার স্বপ্ন দেখে সে। কিন্তু জীবন এক নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি করে তাকে। আচমকাই অ্যাসিড আক্রান্ত হয় দুর্গা। সম্প্রতি কলকাতা প্রেস ক্লাবে ছবির নাম ও পোস্টার মুক্তি উপলক্ষে হাজির হয়েছিল কলাকুশলীরা। নিলম ফিল্মস্ নিবেদিত তনুময় দে প্রযোজিত এই ছবিতে অপুর চরিত্রে দেখা যাবে শিশু শিল্পী তিয়াস দে, দুর্গার চরিত্রে স্নেহা বিশ্বাস এবং বিশেষ চরিত্রে দেবপ্রসাদ হালদার ও সাহেব হালদারকে দেখা যাবে।

পরিচালনার সাথে সাথে ছবির কাহিনীও সত্যজিৎ দাসের। এর আগে অন্ধ চিত্রকরের জীবন নিয়ে সত্যজিতের ‘পেইন্টিং ইন দ্য ডার্ক ‘ ছবিটি দেশবিদেশের দর্শক ও সমালোচকদের কাছে প্রশংসা পেয়েছে। এবার অপু দুর্গার গল্প কোন নতুন আঙ্গিকে দেখাবেন পরিচালক তার জন্য কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। নতুন ছবি প্রসঙ্গে সত্যজিৎ নিজে জানালেন,’ এই সময়ে দাঁড়িয়ে একটি মেয়ের গল্প।

মেয়েটা যেভাবে অত্যাচারিত হচ্ছে, তা সত্বেও নিজের পরিবারকে ভালো রাখতে ও ভাইকে বড় করার স্বপ্ন দেখছে। ভাই ও বোনের মধুর সম্পর্কের কথা বলতে গেলে আমাদের তো অপু দুর্গার কথাই মনে পড়ে। সেখান থেকেই এই ছবিটা করার চিন্তা মাথায় এল।’ ছবিতে পন্ডিত রবিশঙ্করের সঙ্গীতকে রিক্রিয়েট করা হবে বলে জানান পরিচালক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here