শারদ শোভাযাত্রা ও সিঁদুর খেলায় ব্যাতিক্রমী বিজয়া দশমী

0
365

 

দেবলীনা ব্যানার্জী, রায়গঞ্জ : গতবার তাদের থিম ছিল সিঁদুর খেলায় নতুন আলোর সূচনা। এবার সিঁদুর খেলা ও শারদ শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে ব্যাতিক্রমী বিজয়া দশমী পালন করল রায়গঞ্জের নতুন উকিলপাড়া সার্ব্বজনীন দুর্গোৎসব পূজা কমিটি। প্রচলিত রীতি অনুযায়ী চারদিন বাপের বাড়িতে থাকার পর দশমীতে মা দুর্গার কৈলাস গমনের প্রাক্কালে এয়োস্ত্রীরা সিঁদুর খেলায় মেতে ওঠে ও মিষ্টিমুখে চলে দেবীবরণের পালা।

কিন্তু নারীত্বের এই উদযাপনে খানিকটা ব্রাত্যই থেকে যান বিধবারা। এই কারনে বিধবা ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের নিয়ে অভিনব সিঁদুর খেলার আয়োজন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিল এই দুর্গোৎসব কমিটি। এবার দ্বিতীয় বর্ষেও গতবারের মত অভিনব সিঁদুর খেলার সাথে বর্ণময় শারদ শোভাযাত্রার মাধ্যমে ব্যাতিক্রমী বিজয়া দশমী পালন করা হল।

এদিন চিরাচরিত প্রথা ভেঙে এক অন্যরকম সিঁদুরখেলায় সধবাদের পাশাপাশি বিধবা ও বৃহন্নলারাও মেতে ওঠেন। নারীর অধিকারকে স্বীকৃতি জানিয়ে জেলার বুকে আবারও এই দুর্গোৎসব কমিটির উদ্যোগে সিঁদুর খেলার অধিকার পেল সমাজের সকল স্তরের নারীরা। সব রঙ ছাপিয়ে লাল রঙের বন্যায় ভেসে গেল উৎসব প্রাঙ্গণ। সমাজের মূলস্রোতে উৎসবের আনন্দে অংশ নিতে পেরে আপ্লুত হয়ে ওঠেন বৃহন্নলারা।

 

তারা জানিয়েছেন, এই আনন্দের ভাগীদার হতে পেরে সকলেই অত্যন্ত উচ্ছ্বসিত। তাদের মত পিছিয়ে পড়া মানুষদের এভাবে সামনে নিয়ে আসায় তারা গর্বিত বলেও জানিয়েছেন। সিঁদুর খেলার মতই শারদ শোভাযাত্রাটিও ছিল বর্ণময় ও অভিনবত্বে ভরা।আয়োজকদের পক্ষ থেকে সন্দীপ মহলানবিশ জানান, মুখোশ,  সাজসজ্জা, ছৌ নৃত্য সহ গ্রাম বাংলার সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে চেয়েছেন তারা। রায়গঞ্জ ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অনিরুদ্ধ সাহার পরিচালনায় এই অভিনব উদ্যোগে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান অরিন্দম সরকার,  রায়গঞ্জ থানার আই সি সুরজ থাপা,মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অতনু বন্ধু লাহিড়ী, চিকিৎসক জয়ন্ত ভট্টাচার্য ও শান্তনু দাস সহ অন্যান্য বিশিষ্ট মানুষজন।