পাওনা টাকা না দেওয়ায় এক ব্যক্তিকে অপহরণের চেষ্টা, উদ্ধার করলো পুলিশ

0
126

রায়গঞ্জ: নাটকীয় ঢঙে অপহরণ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই দুষ্কৃতীসহ অপহৃত ব্যক্তিকে উদ্ধার করল পুলিশ। পাওনা টাকা আদায়ের জন্য স্টেশন থেকে এক ব্যাক্তিকে অপহরণের চেষ্টা, পরে জিআরপি পুলিশ ও রায়গঞ্জ থানার পুলিশের তৎপরতায় উদ্ধার অপহৃত ব্যাক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ থানার রায়গঞ্জ স্টেশনে। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে রায়গঞ্জ স্টেশন চত্বরে। পুলিশ একজন অপহরনকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ইটাহারের বারিজোল গ্রামের বাসিন্দা আবেদুর রহমান তার স্ত্রী আসমিরা খাতুনকে সাথে নিয়ে বুধবার রাত নটায় সীমাঞ্চল এক্সপ্রেস ট্রেন ধরে দিল্লি যাওয়ার উদ্দেশ্যে রায়গঞ্জ স্টেশনে এসেছিলেন। ট্রেনে ওঠার মুহূর্তে একদল যুবক আবেদুর রহমানকে অপহরন করার জন্য তুলে নিয়ে চলে যায়। আবেদুর রহমানের স্ত্রী আসমিরা খাতুন চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করলে ছুটে আসে স্থানীয় লোকজন ও রায়গঞ্জ স্টেশনের জিআরপি পুলিশ।

এদিকে অপহরনকারীরা স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম থেকে বেড়িয়ে বাইরে গিয়ে টোটোতে চেপে আবেদুরকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে জিআরপি পুলিশ ও রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আবেদুর ও একজন অপহরনকারীকে ধরে ফেলে। বাকি অপহরনকারীরা পালিয়ে যেতে সমর্থ হয়। এরপর আবেদুর সহ একজন অপহরনকারীকে রায়গঞ্জ থানায় নিয়ে আসে। রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য তথা তৃনমূল নেতা আলতাফ হোসেন জানিয়েছেন, তিনি স্থানীয় সূত্রে জানতে পেরেছেন আবেদুর রহমানের কাছে বারিজোল গ্রামের এক মহিলা ১০ লক্ষ টাকা পায়।

সেই টাকা না দিয়েই সপরিবারে দিল্লি চলে যাচ্ছিল আবেদুর। আবেদুরকে আটকাতেই ওই মহিলা রায়গঞ্জ স্টেশনে লোকজন পাঠিয়েছিল। পুলিশের কাছে সমস্ত বিষয়টি জানানো হয়েছে। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আবেদুর রহমানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে একজন অপহরনকারীকেও। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here