নদীতে বাঁশের সাঁকো ভেঙে পড়ায় যোগাযোগ বিপর্যস্ত, সমস্যায় পড়েছে বেশ কয়েকটি গ্রামের হাজারো বাসিন্দা

0
76

ইসলামপুর : যে সাঁকোটি বিগত কয়েক দশক ধরে এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার অন্যতম মাধ্যম ছিল লাগাতার বৃষ্টির জেরে নদীর জলের তোড়ে তা হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল। আর তাতেই বাধল বিপত্তি। যোগাযোগ ব্যবস্থার অন্যতম মাধ্যম সম্পূর্ণ ভাবেই ভেঙে পড়লো। ইসলামপুর ব্লকের দাড়িভিট সংলগ্ন এলাকায় দলঞ্চা নদীর উপরে তৈরি বাঁশের সাঁকোটিনা থাকায় এখন ঘুরপথে কয়েক কিলোমিটার হয়ে তবে প্রয়োজনীয় কাজ করতে জরুরি ভিত্তিতে অনেকেই ইসলামপুরে আসতে হচ্ছে।

কিন্তু তবুও একাধিক গ্রামের সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েই রইল স্বাধীনতার পর সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে জেলা পরিষদ ও প্রশাসনের দ্বারস্থ হলেও আদৌ স্থায়ী সেতুর দাবি পূরণ হয়নি এলাকাবাসির। যদিও ওই অস্থায়ী বাঁশের সাঁকোটির পাশে সম্প্রতি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর থেকে একটি নতুন সেতু তৈরির কাজ শুরু হলেও তাও ঢিমে তালে চলছে বলে অভিযোগ। ফলে সমস্যা যেন সেই তিমিরেই। অবিলম্বে সেই সেতু তৈরির কাজ শেষ করার জোরালো দাবি উঠেছে গ্রামবাসীদের পক্ষে।

যদিও নির্মীয়মান সেতুর কাজ দেখতে ঘটনাক্রমে এই দিনে অর্থাৎ শুক্রবার সকালে এসে পৌঁছান উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর দপ্তরের চিফ ইঞ্জিনিয়ার নীহার কান্তি বিশ্বাস এবং সচিব অজিত রঞ্জন বর্ধন। তারা জানিয়েছেন,আগামী আগস্ট সেপ্টেম্বরের মধ্যে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও জরুরী ভিত্তিতে মার্চ মাসের মধ্যেই এই সেতুর কাজ শেষ করা হবে এবং তারপর যোগাযোগ ব্যবস্থা খুলে দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে।

বর্ষার জন্য কাজ আটকে থাকলেও এই কাজ খুব কম সময়ের মধ্যে অনেকটাই এগিয়ে গেছে। গ্রামবাসীরা জানিয়েছে, এই সাঁকোটি ভেঙে পড়ার জন্য কুনি ভিটা, আশ্রম,ঠুকরা বাড়ি সহ একাধিক গ্রামের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে রয়েছে। আদৌ এই লাগাতার বর্ষার মধ্যে কবে ওই সাঁকো মেরামত করা সম্ভব হবে তার উত্তর জানা নেই। এই সাঁকো না থাকার জন্য তার মাশুল গুনতে হবে এলাকাবাসীকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here