রায়গঞ্জে প্রধান শিক্ষকের দুই দিনের পুলিশি হেপাজতের প্রতিবাদে আন্দোলনের ডাক বাম শিক্ষক সংগঠনের

0
3148

কৌশিক চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ : মহিলা অবর বিদ্যালয় পরিদর্শককে হেনস্থার অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া প্রধানশিক্ষকে দুই দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দিল রায়গঞ্জ সিজেএম কোর্টের বিচারক। উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার রায়গঞ্জ সদর চক্রের অবর বিদ্যালয় পরিদর্শককের অফিসে গিয়ে বচসায় জড়িয়ে পরেন সুভাষগঞ্জ ফ্রি প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক শান্তনু অধিকারি। বিদ্যালয় পরিদর্শক নাসরিন পারভেজ অভিযোগ করেন, এদিন প্রধান শিক্ষকে তার বিদ্যালয়ের প্রতিমাসের রিটার্ন সঠিক সময়ে জমা করার কথা বলায় তিনি উত্তেজিত হয়ে ওঠেন পাশাপাশি দপ্তরের সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর করার চেষ্টা চালান।

প্রধান শিক্ষক শান্তনু অধিকারীর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি, সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরের চেষ্টার সহ একাধিক অভিযোগ তুলে রায়গঞ্জ থানায় লিখিত ভাবে জানান অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক। বৃহস্পতিবার রায়গঞ্জ থেকেই শান্তনু অধিকারীকে গ্রেপ্তার করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। শুক্রবার তাঁকে কোর্টে তোলা হলে দুদিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। পরবর্তী শুনানি আগামী রবিবার হবে বলে জানা গিয়েছে।

যদিও সেদিনের ঘটনাকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন প্রধান শিক্ষক শান্তনু অধিকারী। তিনি জানান, সেদিন কোন সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর করার চেষ্টা করেননি তিনি। ক্যামেরাতেও সেরকম কোন ছবি পাওয়া যাবেনা। অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক কেবলমাত্র রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এইভাবে মিথ্যে অভিযোগ তুলছেন তার বিরুদ্ধে।

গোটা ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির (এবিপিটিএ) সদস্যরা। সমিতির জেলা সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু রায়চৌধুরী জানিয়েছেন, এই মিথ্যা মামলার পেছনে যেসব আধিকারিক যুক্ত আছেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ভাবে প্রতিবাদ কর্মসূচি নেওয়া হবে৷ যেহেতু আগামী রবিবার পরবর্তী শুনানি আছে তাই সেদিনের রায় দেখে কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। প্রয়োজনে সংগঠনের সদস্য ও সাধারণ শিক্ষকদের নিয়ে প্রশাসনের ওপর এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য চাপ দেওয়া হবে। না হলে আগামী দিনে জেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থার প্রতিটি স্তরকে অচল করে দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here