সিকিমে পাচারের আগেই উদ্ধার দুই কিশোর

0
106
মালবাজার: সিকিমে বাড়িতে কাজের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল দুই কিশোরকে। খবর পেয়ে পাচারকারীর কবল থেকে দুই কিশোরকে উদ্ধার করে পুলিশের হাতে তুলে দিল এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্মীরা। উদ্ধারকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্মী রাজু নেপালি জানায়, রবিবার সন্ধ্যা নাগাদ খবর পাই সিকিমে নিয়ে যাওয়ার জন্য দুই কিশোরকে এনে ডামডিম এলাকার এক বাড়িতে রাখা হয়েছে।
আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই দুই কিশোরকে উদ্ধার করি। ওদের একজনের নাম পঞ্চম উরাও(১৫)।বাড়ি কালচিনি এলাকার ডিমডিমা চাবাগানে। অপরজনের নাম বিশাল ছেত্রী(১২)। বাড়ি বানারহাট এলাকার কাঠালগুড়ি চাবাগানে। ওদের কাছ থেকে জানতে পারি ওদের সিকিমে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। ওরা আরোও জানিয়েছে যে সিকিমে যেখানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেখানে ওদের মতো আরও ২০ জন ছেলে আছে।
এদের সবাইকে বিভিন্ন বাড়িতে কাজের জন্য ব্যবহার করা হয়। রাজু নেপালি আরও জানায়, সিকিমে বহু বাড়িতে এরকম শিশু কিশোরদের লাগানো হয়। এদের বাড়িতে রাখতে খরচ অনেক কম। পেটে ভাতে রাখা যায়। মাল থানার ওসি অনিন্দ্য ভট্টাচার্য জানান  ছেলে দুটিকে সি ডাবলু সির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। পাচারকারীর খোজ চলছে। উদ্ধার হওয়া কিশোর দুইজন যে যে চাবাগানের বাসিন্দা সেই দুটি চাবাগানই রুগ্ন। জানাগেছে, এই দুই চাবাগান থেকে বহু কিশোর কিশোরী, নারী পুরুষ কাজের খোঁজে বাইরে আছে। ভিন্ন রাজ্যেও আছে অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here