হেমতাবাদের সমাসপুর মেলার ৮৯ তম বর্ষ

0
251

মৃন্ময় বসাক, হেমতাবাদঃ উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের সমাসপুর সর্বজনীন দুর্গপুজা কমিটির পরিচালনায় মেলা অনুষ্ঠিত হল সমসপুর এলাকায়। প্রতি বছর লক্ষ্মী পুজার পর প্রথম  রবিবার স্থানীয় হাটখোলা মাঠে বসে এই দুর্গাপুজার মেলা। মেলার দিন পর্যন্ত দুর্গা মণ্ডপে পুজা চলতে থাকে। মেলার পরের দিন সোমবার শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে দেবী প্রতিমার বিসর্জন দেওয়া হয়।

এবছর এই মেলার ৮৯ তম বর্ষ। খাবারের দোকানের পাশাপাশি হাতে তৈরি নিত্য প্রয়োজনীয় ও শৌখিন জিনিসপত্রের দোকান বসে এই মেলায়।জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে  বিভিন্ন ধর্মের মানুষ আসেন মেলায়। রবিবার এই মেলা চলে গভীর রাত্রি পর্যন্ত।

 মেলা আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে জিয়াউর রহমান ও নির্মল দাস  জানান, ১৯৩০ সাল থেকে সমাসপুর এলাকায় এই দুর্গাপুজা ও মেলা হয়ে আসছে স্থানীয় সকল ধর্মের মানুষের উদ্যোগে। দুর্গাপুজার মেলা হলেও প্রতি বছর জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সমস্ত ধর্মের মানুষ এই মেলায় ঘুরতে আসেন। স্থানীয়দের কাছে এই মেলা সমস্ত ধর্মের মানুষের মিলন মেলা নামে পরিচিত।

মেলায় ঘুরতে এসে বিষ্ণুপদ বসাক ও আব্দুল লতিফ সরকার জানান, এই মেলাকে কেন্দ্র করে গ্রামে প্রচুর মানুষের সমাগম হয়। মোট ৫০ বিঘা এলাক জুড়ে এই মেলা বসে। উত্তর ও দক্ষিন দিনাজপুর জেলা থেকে ব্যবসায়িরা এই মেলায় আসে তাদের দোকান নিয়ে। মূল মেলা একদিন হলেই এই মেলা চলে মোট তিনদিন। মেলার পাশাপাশি দুর্গা মন্দিরে চলতে থাকে পুজা অর্চনা। মেলায় ঘুরতে আসা সকলের সহযোগিতার জন্য ছিল হেমতাবাদ থানার ওসি দিলিপ রায়ের  নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী।