কন্যাশ্রী প্রকল্পে রাজ্যে প্রথম হল কোচবিহার জেলা

0
104

সুভাষ মন্ডল, কোচবিহারঃ কন্যাশ্রী প্রকল্পে রাজ্যে প্রথম হল কোচবিহার জেলা। কন্যাশ্রী প্রকল্পে রাজ্যে প্রথম এই সাফল্যের মধ্যে দিয়ে কোচবিহার জেলার সাফল্যে নয়া পালক জুড়ল। বুধবার কলকাতার নজরুল মঞ্চে সাফল্যের এই পুরস্কার গ্রহণ করেন কোচবিহার জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক জ্যোতির্ময় তাঁতি। এদিন ওই মঞ্চে বিশেষ অবদানের জন্য কোচবিহারের ৪ কন্যাকেও পুরস্কৃত করা হয়।

জেলাশাসক কৌশিক সাহা জানিয়েছেন,“আমাদের কাছে এই কন্যাশ্রী দিবস বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। কারন এই বছর আমাদের জেলা কন্যাশ্রী প্রকল্পে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। যা আমাদের কাছে অত্যন্ত গর্বের।’’এদিন রাজ্যের বিভিন্ন জেলার সাথে কোচবিহারেও পালিত হল কন্যাশ্রী দিবস। কোচবিহার উৎসব অডিটোরিয়ামে জেলার মূল  অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। এছাড়াও জেলার ৫টি মহকুমার ১২টি ব্লকে এই অনুষ্ঠান হয়েছে।

এবছর এই প্রকল্পে কোচবিহার জেলায় প্রথম হয়েছে সিতাই ব্লকের কালিকুরা জুনিয়ার হাই স্কুল, দ্বিতীয় হয় মাথাভাঙ্গা ১নং ব্লকের বাইসগুড়ি হাই স্কুল এবং তৃতীয় হয় শীতলকুচি ব্লকের বারোমাসিয়া হাই স্কুল।জেলার মধ্যে কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য শ্রেষ্ঠ মহাবিদ্যালয় হিসাবে মনোনীত হয় ঠাকুর পঞ্চানন মহিলা মহাবিদ্যালয়,দ্বিতীয় হয় মেখলিগঞ্জ কলেজ এবং তৃতীয় হয় বানেশ্বর সারথিবালা মহাবিদ্যালয়। এই প্রকল্পের শ্রেষ্ঠ ব্লক হিসাবে মনোনীত হয় কোচবিহার ২, দ্বিতীয় কোচবিহার ১, ও তৃতীয় মাথাভাঙ্গা ১।

এই প্রকল্পে শ্রেষ্ঠ পৌরসভা হিসাবে বিবেচিত হয়েছে কোচবিহার পৌরসভা। এবছর কোচবিহার শহরে কন্যাশ্রী প্রকল্পে প্রথম হয়েছে কোচবিহার নিউটাউন গালর্স হাই স্কুল, দ্বিতীয় সুনীতি একাডেমী এবং তৃতীয় হয়েছে নীলকুঠি সিস্টার নিবেদিতা হাই স্কুল, এনইএলসি স্কুল ফর দা ব্লাইন্ড, কলাবাগান হাই স্কুল, শ্রী হিন্দি বিদ্যালয়, মহাত্মা গান্ধী গালর্স হাই স্কুল ও কোচবিহার উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়।