তিস্তায় উদ্ধার দুটি মৃতদেহ অনুমান নিখোঁজ পর্যটক ও ড্রাইভার

0
146
ফাইল চিত্র
মালবাজারঃ মঙ্গলবার বিকালে তিস্তা ব্যারেজের ১০ ও ১২ নম্বর পিলারের কাছে দুটি মৃতদেহ দেখতে পাওয়া যায়। খবর পাওয়ার সাথে সাথে মাল থানার পুলিশ, শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনারের পুলিশ ও উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজে হাত লাগায়। পরিস্থিতি প্রতিকূল থাকায় উদ্ধারে বিলম্ব হলেও সন্ধ্যা নাগাদ একটি মৃতদেহ উদ্ধার সম্ভব হয়। অপরটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য গত বুধবার দুফুরে বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে রাজস্থান নিবাসী দুই পর্যটক আমন গর্গ (২৬) ও গৌরব শর্মা(২৪) কে নিয়ে একটি ইনোভা গাড়ি গ্যান্টক অভিমুখে যাচ্ছিল। ড্রাইভার ছিলেন রাকেশ রাই (৩৬)।সেভকের করনেশন সেতুর কাছে একটি বাঁকের মুখে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি তিস্তায় পড়ে তলিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে পুলিশ, দমকল ও এন ডি আর এফের উদ্ধারকারী দল গাড়ি ও আরোহীদের উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করে। বহু চেষ্টার পরেও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।
ঘটনার দুইদিন বাদে তিস্তা ব্যারেজের কাছে জলের মধ্যে একটি মৃতদেহ ভাসতে দেখা যায়। উদ্ধারের পর সেটি আমন গর্গের মৃতদেহ বলে সনাক্তকরণ হয়। তারপর থেকে টানা উদ্ধারের চেষ্টা চলে। মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত গাড়ি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এই সময় খবর আসে যে ব্যারেজের কাছে জলে এক মৃতদেহ ভাসছে। পরে দেখা যায় দুটি মৃতদেহ। উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে সন্ধ্যা নাগাদ একটি মৃতদেহ উদ্ধার করে। পরে আর একটি উদ্ধার হয়। একটি মৃতদেহের হাতের টাটু দেখে সনাক্ত করা হয় সেটি ড্রাইভার রাকেশ রাইয়ের।
অপরটি মুখ বিকৃত অবস্থায় ছিল। সনাক্তকরণ অসুবিধা হচ্ছিল। মাল মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দেবাশীষ চক্রবর্তী জানান, আমরা সনাক্তকরণের চেষ্টা করছি। তবে উদ্ধারকারী দলের অনুমান দ্বিতীয় মৃতদেহটি দ্বিতীয় পর্যটক গৌরব শর্মার। সাত দিন বাদে ঘটনাস্থলের অনেক দূরে মৃতদেহ উদ্ধার হলেও গাড়িটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।